আসুন সহজ পদ্ধতিতে গরুর ভুঁড়ি ভুনা রান্না করা শিখে নিন

আসুন সহজ পদ্ধতিতে গরুর ভুঁড়ি ভুনা রান্না করা শিখে নিন


আজকে নিয়ে এসেছি আমাদের দেশের খুবই জনপ্রিয় একটি খাবার, গরুর ভুঁড়ি ভুনা। অনেকে একে বট ভুনাও বলে। এটি বিভিন্ন দেশে স্ট্রিট ফুড হিসেবে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়। ভুঁড়ি বা বট খেতে কার না ভালো লাগে! গরুর ভুঁড়ি সবচেয়ে সুস্বাদু, বিশেষ করে যখন ভুনা হয়। কমবেশি সবাই তাদের কব্জি ডুবিয়ে ভুঁড়ি পেলে খায়। গরুর ভুঁড়ি ভুনা খুব সহজ। এই সুস্বাদু খাবারটি আপনি অল্প কিছু উপকরণ দিয়ে রান্না করতে পারেন, তাহলে চলুন আজ দেখে নেওয়া যাক কীভাবে তৈরি করবেন এই সুস্বাদু খাবারটি।


গরুর ভুঁড়ি ভুনা রান্না করার উপকরণ


  • গরুর ভুঁড়ি - ৩ কেজি
  • আদা/রসুন পেস্ট ২ টেবিল চামচ

  • গরম মসলা গুঁড়া ১ চা চামচ
  • হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ
  • ধনে গুঁড়া ১ টেবিল চামচ
  • জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ
  • ৪-৫ টি শুকনো কাঁচা মরিচ
  • লবণ স্বাদমতো
  • তেল- ১/২ কাপ
  • তেজপাতা- ২টি
  • দারুচিনি- ২ টি
  • এলাচ এবং লবঙ্গ - ৪-৫ টি প্রতিটি
  • পেঁয়াজ কাটা - ৩ কাপ
  • লাল মরিচের গুঁড়া- ১ চা চামচ
  • পানি- ১/২ কাপ


গরুর ভুঁড়ি ভুনা রান্না করার পদ্ধতি


- প্রথমে ভুঁড়ি খুব ভালো করে পানিতে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে। পাত্রে যেন চুল বা ময়লা লেগে না থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। পরিষ্কারের সুবিধার জন্য, শুঁটি ছোট ছোট টুকরা করা যেতে পারে।


-এবার চুলায় পানি দিয়ে তাতে ১ টেবিল চামচ আদা বাটা ও সামান্য হলুদ দিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে নিন। সিদ্ধ হওয়ার পরে, ভুঁড়ি বের করে ছোট কিউব করে কেটে নিন।


– এবার একটি ফ্রাইং প্যানে তেল দিন এবং তাতে তেজপাতা, দারুচিনি, লবঙ্গ এবং এলাচ দিন। তারপর কাটা পেঁয়াজ যোগ করুন। তারপর হলুদ, লাল মরিচ, জিরা ও ধনে গুঁড়ো দিন। আদা ও রসুনের পেস্ট দিন। স্বাদমতো লবণ যোগ করুন। এবার এই মিশ্রণে পানি যোগ করে কিছুক্ষণ ভালো করে নেড়ে দিন।


- ঝাঁঝরি করার পর এতে ভুঁড়িগুলো দিন। ভালো করে মেশান এবং মশলা দিয়ে মেশান। এর পর ঢেকে ১০ মিনিট হাই আঁচে রান্না করুন।


- ১০ মিনিট পর ঢাকনা খুলে কিছুক্ষণ ভাজার পর দুই কাপ পানি দিন। এবার ঢেকে রাখুন এবং মাঝারি আঁচে ১ ঘণ্টা রান্না করুন।


- ১ ঘণ্টা পর দেখবেন পানি বাষ্প হয়ে গেছে। এবার ঝোল কমানোর জন্য ভুঁড়িগুলো কিছুক্ষণ নেড়ে দিন। এখন আপনি চাইলে এভাবে খেতে পারেন বা আরও ভুনা করে খেতে পারেন। আপনি চাইলে হাঁড়ি কালো করে অন্য পাত্রে ভুনা করতে পারেন।


এবার নামিয়ে লুচি বা পরোটার সাথে পরিবেশন করুন। যেকোনো ধরনের চাটনি বা সালাদ দিয়ে পরিবেশন করতে পারেন।ভাত, রুটি, পরোটার সাথে এই ভুঁড়ি ভুনা ভালো যায়।


রেফেরেন্স: shajgoj.com

jagonews24.com

পরবর্তী পোস্ট পূর্ববর্তী পোস্ট
মন্তব্য নেই
মন্তব্য যোগ করুন
comment url